সর্বশেষ আপডেট করা হয়েছে :2014-11-25 
Links
 
এ পর্যন্ত পড়েছেন
জন পাঠক
 
সর্বমোট জীবনী 290 টি
ক্ষেত্রসমূহ
সাহিত্য ( 37 )
শিল্পকলা ( 18 )
সমাজবিজ্ঞান ( 8 )
দর্শন ( 2 )
শিক্ষা ( 18 )
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ( 8 )
সংগীত ( 9 )
পারফর্মিং আর্ট ( 8 )
প্রকৃতি ও পরিবেশ ( 2 )
গণমাধ্যম ( 7 )
মুক্তিসংগ্রাম ( 132 )
চিকিৎসা বিজ্ঞান ( 3 )
ইতিহাস গবেষণা ( 0 )
স্থাপত্য ( 1 )
সংগঠক ( 8 )
ক্রীড়া ( 6 )
মানবাধিকার ( 2 )
লোকসংস্কৃতি ( 0 )
নারী অধিকার আন্দোলন ( 2 )
আদিবাসী অধিকার আন্দোলন ( 1 )
যন্ত্র সংগীত ( 0 )
উচ্চাঙ্গ সংগীত ( 0 )
আইন ( 1 )
আলোকচিত্র ( 3 )
সাহিত্য গবেষণা ( 0 )
Untitled Document
এ মাসে জন্মদিন যাঁদের
আবু ইসহাক: নভেম্বর ০১
রাশীদুল হাসান: নভেম্বর ০১
মণিকৃষ্ণ সেন : নভেম্বর ০১
ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত: নভেম্বর ০২
চিত্তরঞ্জন দাশ: নভেম্বর ০৫
আমিনুল ইসলাম: নভেম্বর ০৭
বিপিনচন্দ্র পাল: নভেম্বর ০৭
মাহবুব উল আলম চৌধুরী: নভেম্বর ০৭
রণদাপ্রসাদ সাহা: নভেম্বর ০৯
রণদাপ্রসাদ সাহা: নভেম্বর ০৯
মুহ. আব্দুল হান্নান খান: নভেম্বর ১১
হুমায়ূন আহমেদ: নভেম্বর ১৩
আবু তাহের: নভেম্বর ১৪
জামিলুর রেজা চৌধুরী: নভেম্বর ১৫
মাহমুদুল হক: নভেম্বর ১৬
মামুন মাহমুদ: নভেম্বর ১৭
মনোরমা বসু: নভেম্বর ১৮
সুফিয়া আহমেদ: নভেম্বর ২০
ইমদাদ হোসেন: নভেম্বর ২১
হাতেম আলী খান: নভেম্বর ২৪
মুহম্মদ আবদুল হাই: নভেম্বর ২৬
মুনীর চৌধুরী: নভেম্বর ২৭
রফিকুন নবী: নভেম্বর ২৮
হেরাম্বলাল গুপ্ত: নভেম্বর ২৮
আতিউর রহমান: নভেম্বর ২৮
সাখাওয়াত আলী খান: নভেম্বর ৩০
নেত্রকোণার গুণীজন
ট্রাস্টি বোর্ড
উপদেষ্টা পরিষদ
গুণীজন ট্রাষ্ট-এর ইতিহাস
"গুণীজন"- এর পেছনে যাঁরা

If you cannot view the fonts properly please download and Install this file.
 
Untitled Document

 

Online Exhibition
New Prof
কমলা বেগম করিমন বেগম আসিয়া বেগম
 
চিত্রশিল্পী ইমদাদ হোসেনের জন্মদিন

ইমদাদ হোসেন ১৯২৬ সালের ২১ নভেম্বর চাঁদপুরে জন্মগ্রহণ করেন।

বর্তমানে বাংলাদেশে যে ব্যাপকভাবে মেলার প্রচলন ঘটেছে নিঃসন্দেহে এর পেছনে মূল প্রভাবকের দায়িত্ব পালন করেছেন ইমদাদ হোসেন। দেশীয় পোষাক ও তাঁতশিল্পের উন্নতির জন্য তিনি অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। বস্ত্রশিল্পের প্রচার ও প্রসারের পাশাপাশি তাঁতশিল্প সংশ্লিষ্ট মানুষদের স্বাবলম্বী হয়ে ওঠার জন্য তিনি আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালিয়ে গেছেন। তিনি মেলা উপলক্ষে গ্রাম-গঞ্জের ক্ষয়িঞ্চু মৃৎশিল্প, পাটশিল্প সহ বিভিন্ন কারু ও হস্তশিল্পের প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করেছেন যা আজ নিজ দেশের সীমা ছাড়িয়ে বিশ্ববাজারে স্থান করে নিয়েছে। এসবই শিল্পী ইমদাদ হোসেনের আন্তরিক প্রচেষ্টার ফসল।

তাঁর জন্মদিনে 'গুণীজন' তাঁকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছে।

ইমদাদ হোসেনের বর্ণাঢ্য জীবনী পড়তে ক্লিক করুন।

ভাষাসৈনিক সুফিয়া আহমেদের জন্মদিন

আজকের খ্যাতিমান নারী ব্যক্তিত্ব সুফিয়া আহমেদ ১৯৩২ সালের ২০ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন।

শিক্ষা ও গবেষণার ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য বাংলাদেশের প্রথম মহিলা জাতীয় অধ্যাপক-এর সম্মানে সম্মানিত হয়েছেন ড. সুফিয়া আহমেদ। ১৯৫২-তে যাদের অসামান্য অবদানের জন্য আজ আমরা বাংলায় লিখছি, বলছি, প্রাণ খুলে আড্ডায় মেতে উঠছি, সেসব ভাষাসৈনিকদের অন্যতম তিনি। নিভৃতচারী, আত্মপ্রচারে বিমুখ ব্যক্তিত্ব, শান্ত, সৌম মুখের মানুষটি অন্যায়ের বিরুদ্ধে এখনও সমানভাবে সোচ্চার। দীর্ঘ সময়ের পথচলার অভিজ্ঞতা তাঁর ভাণ্ডারে। ভাষা আন্দোলনে, স্বাধিকার রক্ষার লড়াইয়ে সাহসী ভূমিকা পালন করেছিলেন সুফিয়া আহমেদ। বিস্তৃত তাঁর কাজের পরিধি। আর প্রতিটি ক্ষেত্র থেকেই সফলতা তুলে এনেছেন স্বযত্নে।

তাঁর জন্মদিনে 'গুণীজন'-এর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা রইল।

সুফিয়া আহমেদের বর্ণাঢ্য জীবনী পড়তে ক্লিক করুন।

উপনিবেশবাদবিরোধী বিপ্লবী মনোরমা বসুর জন্মদিন

মনোরমা রায়ের জন্ম ১৮৯৭ সালের ১৮ নভেম্বর, বরিশাল জেলার বানাড়ীপাড়া থানার নরোত্তমপুর গ্রামে।

তিনি ব্রিটিশদের শৃঙ্খল থেকে ভারতবর্ষকে মুক্ত করার জন্য বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে অংশগ্রহণ করেন এবং বিপ্লবী মনোরমা বসু মাসিমা নামে পরিচিতি লাভ করেন। তিনি মানুষের মুক্তির জন্যও আন্দোলন করে গেছেন সারাজীবন। বরিশাল শহরে নিজ বাড়িতেই গড়ে তোলেন কুমারী মা, স্বামী পরিত্যক্তা, বিপথগামী ও আশ্রয়হীনা মেয়েদের আশ্রয়স্থল 'মাতৃমন্দির'। অসহায় মেয়েদের স্বাবলম্বী করতে গড়ে তোলেন 'নারী কল্যাণ ভবন', শিশু- কিশোরদের মানসিক বিকাশের জন্য 'মুকুল-মিলন খেলাঘর আসর', সাধারণ মানুষের জ্ঞানের জন্য 'পল্লীকল্যাণ অমৃত পাঠাগার', নারী জাগরণ ও নারী অধিকার রক্ষায় 'নারী আত্মরক্ষা সমিতি', 'মহিলা সমিতি' ও 'মহিলা পরিষদ'সহ নানা সংগঠন।

তাঁর জন্মদিনে 'গুণীজন' তাঁকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছে।

মনোরমা বসুর বর্ণাঢ্য জীবনী পড়তে ক্লিক করুন।

শহীদ বুদ্ধিজীবী মামুন মাহমুদের জন্মদিন

মামুন মাহমুদের জন্ম ১৯২৮ সালের ১৭ নভেম্বর চট্টগ্রামে তাঁর নানার বাড়িতে।

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ ক্র্যাকডাউন হবার সময় একটা ব্যাপক হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়। এই হত্যাকাণ্ডে পাকিস্তানীদের প্রধান টার্গেট ছিল যাঁরা যুদ্ধ পরিচালনা করবে তাঁদেরকে সরিয়ে দেওয়া। বিশেষত তাঁদেরকেই যাঁরা বিভিন্ন পেশাভিত্তিক সংগঠনে কাজ করছিলেন। এরই অংশ হিসাবে ২৬ মার্চ হতে ৩০ মার্চ পর্যন্ত ব্যাপক মানুষ গায়েব করে দিয়েছে পাকিস্তানী সামরিক বাহিনী। তারমধ্যে মামুন মাহমুদ একজন। যিনি তখন রাজশাহীর ডিআইজি ছিলেন।

তাঁর জন্মদিনে 'গুণীজন' তাঁকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছে।

মামুন মাহমুদের বর্ণাঢ্য জীবনী পড়তে ক্লিক করুন।

সাহিত্যিক মাহমুদুল হকের জন্মদিন

আমাদের কথাসাহিত্যের বিরল ব্যতিক্রম ব্যক্তিত্ব মাহমুদুল হকের জন্ম ১৯৪০ সালে ১৬ নভেম্বর (২ অগ্রহায়ণ ১৩৪৮) ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বারাসাতে।

কথাসাহিত্যে মাহমুদুল হক ছিলেন পাকা জহুরি। বাংলাদেশের সমাজের এমন কিছু চরিত্র তিনি তুলে এনেছেন, এমন কিছু চরিত্র তিনি অলঙ্কার গড়ার মতোই সুক্ষ্ম চারুতায় গড়ে তুলেছেন যা আর কারও পক্ষে সম্ভব হয়নি। 'জীবন আমার বোন'-এর রঞ্জু, খোকা, নীলাভাবি, 'অনুর পাঠশালা'-এর অনু, 'নিরাপদ তন্দ্রা'র হিরণ, ইদ্রিস কম্পোজিটর, কাঞ্চন, 'কালো বরফ'-এর আবদুল খালেক, রেখা, নরহরি ডাক্তার কিংবা 'প্রতিদিন একটি রুমাল' গল্পগ্রন্থ ও অগ্রন্থিত শতাধিক গল্পের শত শত চরিত্রকে চিনে নিতে বা গড়ে নিতে খুব বেশি সময় লাগেনি।

তাঁর জন্মদিনে 'গুণীজন' তাঁকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছে।

মাহমুদুল হকের বর্ণাঢ্য জীবনী পড়তে ক্লিক করুন।

   
Gunijan

Content on this site is licensed under Creative Commons Attribution-Noncommercial 3.0 Unported.
© 2014 All rights of Photographs, Audio & video clips and softwares on this site are reserved by
.